Teachitbd.প্রযুক্তির সাথে সবসময়

Recent Post

Welcome To Teachitbd

ওয়েব সাইটের সর্বশেষ পোষ্ট পেতে লাইক দিন আমাদের ফেসবুক পেইজ এ আর পান প্রতিদিন নতুন নতুন টিপ্স এন্ড টিউটোরিয়াল ।

Follow us

Thursday, August 25, 2016

Android 7.0 আসছে ফিচার গুলু



নেক্সাস ৬, নেক্সাস ৫এক্স,
নেক্সাস ৬পি, নেক্সাস ৯,
নেক্সাস প্লেয়ার এবং
পিক্সেল সি-তে পাওয়া
যাবে নুগেট।
এসব যন্ত্রের ৬.০.১
মার্শমেলোকে আপডেট করে
৭.০ নুগেটে নিতে হবে।
এখন নির্মাতা নুগেটকে নিয়ে
শেষ পর্যায়ের পরীক্ষা
চালাচ্ছেন। এটি চলাকালে
অপেক্ষায় থাকতেই হচ্ছে।
তবে বিশেষজ্ঞরা
জানিয়েছেন নতুন
অপারেটিং সংস্করণের কিছু
অনন্য বৈশিষ্ট্যের খবর। .
.
★১. গুগল অ্যাসিস্টেন্ট : নতুন
অ্যাসিস্টেন্ট সফটওয়্যারের
মাধ্যমে স্মার্টফোনের সঙ্গে
আরো প্রাণবন্ত আলাপ করতে
পারবেন। এর মাধ্যমে আগের
চেয়ে অনেক কার্যকরভাবে
রেস্টুরেন্ট নিয়ে গবেষণা
চালাতে পারবেন।
★২. ইনস্ট্যান্ট অ্যাপ : নুগেট
আসার সময় হয়ে গেছে। এতে
থাকছে ইনস্ট্যান্ট অ্যাপ। এর
মাধ্যমে জেলি বিন
পরিচালিত
সিস্টেমেও বেশ কিছু অ্যাপ
সরাসরি ডাউনলোড করা
যাবে।
এই অ্যাপটি ডিজিটাল
পেমেন্ট সিস্টেমের জন্য বেশ
কার্যকর।
★৩. মাল্টিউইন্ডো : পর্দায়
একযোগে দুইটি অ্যাপ নিয়ে
কাজ করা অ্যান্ড্রয়েড
স্মার্টফোন বা ট্যাবের জন্য
জরুরি হয়ে পড়েছে।
মাল্টিউইন্ডো সুবিধার
মাধ্যমে ফোন বা ট্যাবের
পর্দায় একাধিক অ্যাপ স্ক্রিন
ভাগাভাগি করে নিয়ে কাজ
করবে। এই ফিচারটি নতুন নয়।
কয়েক বছর আগেই এলজি এবং
স্যামসাংয়ের কিছু ফোনে
দেওয়া হয়েছে। নুগেটে গুগল
পিকচার-ইন-পিকচার প্রযুক্তি
দেবে। এর মাধ্যমে ভিডিও
চালাতে পারবেন। অথাৎ,
টুইটার বা ইমেইলে ব্যস্ত থাকা
অবস্থায় ইউ টিউবে ভিডিও
চালাতে পারবেন।
★৪. নোটিফিকেশনে রিপ্লাই
: অ্যান্ড্রয়েডের
পরিধানযোগ্য হাতঘড়ি থেকে
সুবিধাটি আনা হয়েছে।
নোটিফিকেশনের ঘর থেকে
টেক্সট মেসেজ পাঠাতে
পারবেন। নতুন কোনো মেসেজ
আসলে একটি সংকেত পপ আপ
আকারে দেখা যাবে
স্ক্রিনের একেবারে ওপরে।
আর সেখান থেকেই
মেসেজের রিপ্লাই দিতে
পারবেন। আইওএস-এ সুবিধাটা
রয়েছে। এবার অ্যান্ড্রয়েডে
আসাটা মন্দ হবে না।
★৫. নোটিফিকেশনের
বান্ডেল : আপনার ফোনে
নোটিফিকেশনের স্তূপ জমে
গেলে সহায়তা করবে এই
ফিচার। গ্রুপ
নোটিফিকেশনগুলো একটি
অ্যাপে আনা হবে। একটি
তালিকায় গ্রুপগুলো একসাথে
করা যাবে। ওপর-নিচ করে
যেকোনো একটি থেকে
সংকেত
পাওয়া সম্ভব।
★৬. ডোজ অন দ্য গো : ব্যাটারি
বাঁচানোর ফিচার ‘ডোজ’ প্রথম
আনা হয় অ্যান্ড্রয়েড
মার্শমেলোতে।
ব্যাকগ্রাউন্ডে চালু থেকে
যেসব অ্যাপ চার্জ ক্ষয় করে,
তাদের বন্ধ করে দেয় এই
ফিচার। ‘ডোজ অন দ্য গো’ একই
কাজ করবে।
আপনার ফোনটি নড়াচড়া না
হলেই চালু অ্যাপগুলো বন্ধ করে
দেবে এই ফিচার। এ ছাড়া
প্রজেক্ট সুয়েল্টে নিয়েও
কাজ করছে গুগল। এর মাধ্যমে
অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারে যতটা
মেমোরি লাগে তা কমিয়ে
আনা হবে। বিশেষ করে
সাম্প্রতিক এবং নিম্ন
স্পেসিফিকেশন অ্যান্ড্রয়েড
ফোনগুলোর জন্য ফিচারটি বেশ
কার্যকর হবে।